Bangla24Hour

Online Bangla News!

ত্বকের সৌন্দর্যে আমলকীর ফেসপ্যাক

আজ “ত্বকের যত্ন নিন”– গানটা গেতে গেতে আমলকীর কতোগুলো খুবই উপকারী ফেসপ্যাক নিয়ে বলবো।

নিয়মিত কাঁচা আমলকি খাওয়া শুরু করলে ত্বকের সৌন্দর্য বাড়তে সময় লাগে না ঠিকই। কিন্তু সেই সঙ্গে যদি কিছু আমলকীর ফেসপ্যাক ব্যবহার করেন, তাহলে খুব দ্রুতই ত্বক সুন্দর হয়ে উঠবে। ফলে একদিকে যেমন ত্বকে ব্রাইটনেস আসে, তেমনি অন্যদিকে মুখের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পায় চোখে পড়ার মতো!

ভাবতে পারেন বাজারে তো অনেক রেডিমেড ফেসপ্যাক আছে, তাহলে হঠাৎ করে আমলকী কেন! আসলে বিশেষজ্ঞদের মতে এই ফলটিতে থাকা উপকারি ফ্যাট, ভিটামিন এ, সি, ডি, ই, কে, বি ১২ এবং ক্যালসিয়াম স্কিনের পুষ্টির ঘাটতি দূর করার মধ্য দিয়ে ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। শুধু তাই নয়, এতে বিদ্যমান আয়রন, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস এবং পটাসিয়াম-ও নানাভাবে ত্বকের পরিচর্যা করে থাকে। সেই সঙ্গে নানাবিধ স্কিন ডিজিজ-এর প্রকোপ কমাতেও বিশেষভাবে কার্যকরী। তাই তো ত্বকের খেয়াল রাখতে আমলকীর কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে।

চলুন তবে ফেসপ্যাক-গুলো সম্পর্কে এবার জানা যাক।

১. আমলকী এবং হলুদ গুঁড়ো
হাজারো চেষ্টার পরেও পক্স এবং ব্রণর দাগ মেলায় নি? কোনো চিন্তা নেই! আজ থেকেই আমলকী এবং হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে বানানো ফেসপ্যাক মুখে লাগাতে শুরু করুন। দেখবেন দাগ মিলিয়ে যেতে শুরু করেছে। সেই সঙ্গে আমলকী এবং হলুদের গুণে ত্বকের সৌন্দর্যও বৃদ্ধি পাবে বহুগুণে।

প্যাক-টি বানাতে লাগবে- ৩ চা চামচ আমলকী পাউডার… ১ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো… ২ চা চামচ লেবুর রস

সবকটি উপাদান মিশিয়ে নেওয়ার পর পেস্টটি মুখে লাগিয়ে কম করে ১৫-২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। সময় হয়ে গেলে হালকা কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে মুখটা। সপ্তাহে কম করে একবারও যদি এইভাবে ত্বকের পরিচর্যা করা যায়, তাহলে ফল মিলবে একেবারে হাতেনাতে!

২. পেঁপে এবং আমলকী
স্কিন-এর ব্রাইটনেস বাড়াতে এই ফেসপ্যাক-এর জুড়ি নেই। প্যাক-টি বানাতে লাগবে- ২ চা চামচ আমলকী গুঁড়ো… ২ চা চামচ পেঁপে, পেস্ট করা… পরিমাণ মতো কুসুম গরম পানি

সব ভালো করে মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে। সবশেষে পেস্টটি মুখে লাগিয়ে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। এই সময় পেঁপেতে থাকা উপকারি এনজাইম ত্বকে প্রবেশ করে এমন খেল দেখাবে যে স্কিনটোন-এর উন্নতি তো ঘটবেই, সেই সঙ্গে ত্বকের উজ্জ্বলতাও বৃদ্ধি পাবে।

৩. আমলকী, দই এবং মধু
চটজলদি ত্বকের গভীরে লুকিয়ে থাকা ময়লাকে পরিষ্কার করতে চান? তাহলে এই ফেসপ্যাক-টিকে কাজে লাগাতে ভুলবেন না যেন! বিশেষজ্ঞদের মতে, নিয়মিত ত্বকের পরিচর্যায় এই প্রকৃতিক উপাদানটিকে কাজে লাগালে ত্বক তো পরিষ্কার হয়ই, সেই সঙ্গে স্কিন হয়ে ওঠে তুলতুলে এবং প্রাণবন্ত।

প্যাক-টি বানাতে লাগবে- ২ চা চামচ আমলকী পাউডার… ১ চা চামচ মধু… ১ চা চামচ দই

সবকটি উপাদানকে ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর পেস্টটি মুখে লাগিয়ে কম করে হলেও ১০-২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে সময় হয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন মুখটা।

৪. অ্যাভোকাডো এবং আমলকী
বেশ কিছু স্টাডিতে দেখা গেছে এই দুটি ফলকে এক সঙ্গে মিলিয়ে বানানো ফেসপ্যাক-এ এত মাত্রায় অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং আরও সব উপকারি উপাদান থাকে যে তা নানাভাবে ত্বকের পরিচর্যা করে থাকে। বিশেষত বলিরেখা কমানোর মাধ্যমে ত্বকের বয়স কমাতে এই ফেসপ্যাকটির কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে। তাই ৩০-এর পরে যদি ত্বককে সুন্দর এবং প্রাণবন্ত রাখতে চান, তাহলে এই ফেসপ্যাক-টি ব্যবহার করতে পারেন।

প্যাক-টি বানাতে লাগবে- ২ চা চামচ আমলকী পাউডার… ২ চা চামচ অ্যাভোকাডো, পেস্ট করা… সামান্য টক দই

সবকটি উপাদান ভাল করে মিশিয়ে নিয়ে সেটি মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। সময় হয়ে গেলে হালকা কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে মুখটা।

৫. আমলকী, পার্সলে শাক এবং মধু
এক্ষেত্রে পার্সলে-এর নামটা শুনে ঘাবড়ে যাবেন না! সুপার মার্ট-গুলোতে ইজিলি পেয়ে যাবেন। আর এটা কিন্তু স্কিন এর জ্বালা-পোড়া, ঝুলে পড়া, অ্যাকনি, অতিরিক্ত তেল ইত্যাদি কমাতে খুব কার্যকরী। স্কিন কেয়ার-এর জন্য খুবই ভালো একটি প্যাক এটি।

প্যাক-টি বানাতে লাগবে- ১.৫ চা চচামচ পার্সলে শাক, ভাল করে কুঁচি করা… ২ চা চামচ আমলকী পাউডার… ১ চা চামচ মধু… সামান্য কুসুম গরম পানি

সবকটি উপাদান মিশিয়ে নেওয়ার পর সেটি মুখে লাগাতে হবে। ৩০ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলতে হবে মুখ।

প্রসঙ্গত, এইভাবে প্রতিদিন ত্বকের পরিচর্যা করলে দেখবেন ব্রণ এবং অ্যাকনি-এর প্রকোপ তো কমবেই। সেই সঙ্গে মুখের যে কোনও দাগ মিলিয়ে যেতেও দেখবেন সময় লাগবে না। আর ভালো ফোল পেতে প্যাক-গুলো থেকে নিজের পছন্দানুযায়ী বেছে নিয়ে সপ্তাহে ২-৩ দিন লাগাবেন।

Bangla24hour © 2018