[Close]

রাজবাড়ীর কালুখালীতে পুরোনো মাটির ঢিবি খুঁড়তেই বেরিয়ে আসে জমিদার বাড়ির গুপ্তধন !


রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার মদাপুর ইউনিয়নের দামুকদিয়া গ্রামে একটি পুরোনো মাটির ঢিবি খুঁড়তেই বেরিয়ে আসে ইট, শিলপাটা, ঘটি, বাটিসহ বিভিন্ন তৈজসপত্র। স্থানীয় লোকজনের দাবি, এসব উপকরণ প্রাচীন আমলে ব্যবহার করা হতো।

আজ শুক্রবার ওই ঢিবি ও জমির মালিক আবদুল মান্নান মণ্ডল প্রথম আলোকে বলেন, ‘এখানে ২০ শতাংশ জমি আমার দাদা তৎকালীন জমিদার আদি মোহাম্মদের কাছ থেকে কিনেছিলেন। অনেক দিন এই জমি পতিত ছিল। সম্প্রতি মাটি ব্যবসায়ী আবদুল মান্নানের কাছে ওই জমির মাটি বিক্রি করেছি। ১৪ জন শ্রমিক মাটি কাটার কাজ করছেন। সপ্তাহখানেক ধরে মাটি কাটা শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে মাটির নিচ থেকে বেরিয়ে আসে পাথরের বাটি, শিলপাটা। এরপর শক্ত মাটি ও বর্গাকার ইট পাওয়া যায়। ইটগুলোতে সুন্দর নকশা করা। খবরটি ছড়িয়ে পড়ার পর স্থানীয় লোকজন এসব দেখার জন্য ভিড় করছে।’

শ্রমিক দিলাল খা বলেন, ‘আমরা দৈনিক মজুরির বিনিময়ে এখানে মাটি কাটার কাজ করছি। মাটি কাটার সময় ইট ও কিছু ঘটি-বাটি পাওয়া গেছে।’

স্থানীয় বাসিন্দা পরিতোষ কুমার বলেন, ‘শুনেছি ব্রিটিশ আমলে এখানে জমিদার বাড়ি ছিল। সাপের উপদ্রব ও স্থানটি অপরিষ্কার থাকায় খুব প্রয়োজন ছাড়া সেখানে কেউ যাতায়াত করে না। যেহেতু পুরোনো মালামাল পাওয়া গেছে। মূল্যবান জিনিসপত্রও থাকতে পারে। প্রশাসনের উচিত জায়গাটি গুরুত্ব দিয়ে রক্ষণাবেক্ষণ করা।’

কালুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম বলেন, খবরটি শোনার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। সেখানে মাটির কিছু তৈজসপত্র পাওয়া গেছে।

<>
<>

Bangla24hour.com © 2017