[Close]

মা-বাবার চোখের সামনে সন্তানের এ কেমন মৃত্যু !!


নয় বছরের শিশু আলবিরা রহমান। বাইরে ঘুরে ফিরে আনন্দের সঙ্গে বাসায় ফিরছিল বাবা-মার হাত ধরে। রাজধানীর শান্তিনগরের চামেলিবাগে ১৮ তলা গ্রিন পিস অ্যাপার্টমেন্টে। বৃহস্পতিবার (২৯ মার্চ) রাত সাড়ে ৯টার দিকে ভবনে পৌঁছে লিফটে উঠে দাঁড়ালো। লিফটও তাদের নিয়ে উপরের দিকে যেতে শুরু করলো।

বাসা তাদের ১৫ তলায়, সেখানে গিয়ে লিফটের দরজাও যথারীতি খুলে গেল। লিফট থেকে প্রথমে নামলেন আলবিরার বাবা শিপলুর রহমান ও মা উম্মে সালমা রহমান। আনন্দে আনমনা আলবিরার নামতে একটু দেরি হলো। আর এই একটু দেরিই তার জন্য কাল হলো। আলবিরা নামতেই নির্দয়ভাবে তাকে চেপে ধরলো লিফটের দরজা। তখন ত্রুটিপূর্ণ লিফটির সেন্সরও কাজ করেনি।

 

আর ঠিক এই সময়ে উপর থেকে ছিল লিফটের কল। আলবিরাকে চেপে ধরেই লিপট দ্রুত উপরের দিকে ছুটলো। আর তখনি ছাদের সঙ্গে ধাক্কা লাগে তার মাথা। অজ্ঞান হয়ে পড়ে যায় ছোট্ট শিশু আলবিরা। সেখান থেকে উদ্ধার করে তাকে স্কয়ার হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহত আলবিরার বাবা-মা থাকতেন ওই ভবনের ১৫ তলায়। একটি দুর্ঘটনা তাদের প্রিয় সন্তানকে কেড়ে নিলো।

ভবনের এক নিরাপত্তাকর্মী জানান, ভাই বৃহস্পতিবার রাতে আইলে দ্যাখতেন। কী রক্ত! মাইয়াডারে নিয়া চিক্কুর পাড়তে পাড়তে হ্যার (ওর) বাপ-মায় হাসপাতালে গেল। পরে শুনলাম মইরাই গ্যাছে গা। কী সুন্দর ফুটফুইট্যা আছিল।

 

পল্টন থানার ডিউটি অফিসার এসআই সুলতানা আক্তার জানান, শিপলু ও সালমা নেমে পড়ার পর আলবিরা নামতে একটু দেরি করে। তখনই লিফট তাকে চাপা দিয়ে উপরে উঠে যায়। ছাদের ধাক্কায় মাথায় জখম হয়েছে। তাতেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি।

লিফট ত্রুটিপূর্ণ জেনেও ভবন পরিচালনা পরিষদের সদস্যরা কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় ক্ষুব্ধ বাসিন্ধাদের একজন জানান, প্রায়ই লিফটির সেন্সর কাজ করে না। কোনো লিফটম্যান থাকে না।

 

তা অস্বীকার করে এটাকে দুর্ঘটনা আখ্যা দিয়ে ভবন পরিচালনা পরিষদের সভাপতি মোহাম্মদ আলমগীর মিয়া দাবি করেন, লিফটের বয়স ৭-৮ বছর হয়ে গেছে। লিফটের সার্ভিসিং ঠিক ছিল। লিফটম্যানও ছিল।

সূত্রঃ বিডি২৪লাইভ

The post মা-বাবার চোখের সামনে সন্তানের এ কেমন মৃত্যু !! appeared first on Ekusher Bangladesh.

Bangla24hour.com © 2017