[Close]

পার্লামেন্ট ভেঙে দিলেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী


সাধারণ নির্বাচনকে সামনে রেখে মালয়েশিয়ার পার্লামেন্ট ভেঙে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক।

শুক্রবার (৬ এপ্রিল) পার্লামেন্ট ভেঙে দেয়ার ঘোষণা দিলেন নাজিব। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেয়া এক বিশেষ ঘোষণায় নাজিব বলেন, পার্লামেন্ট ভেঙে দেয়ার জন্য রাজা সুলতান মোহাম্মদ ভি অনুমতি দিয়েছেন। শনিবার (৭ এপ্রিল) থেকে এ ঘোষণা কার্যকর হবে।

আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে নির্বাচনের তারিখ নির্ধারনের জন্য নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন নাজিব রাজাক।

আবারও নির্বাচিত হলে দেশে বড় ধরনের পরিবর্তন আনার অঙ্গীকার করে নাজিব রাজাক বলেন, যদি বিএন জোট জয় পায়, তবে আমরা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি, দেশকে আরও বড় ও ব্যাপকতর রূপান্তরের মধ্য দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাব।

রাষ্ট্রীয় তহবিল আত্মসাতের অভিযোগ ওঠার পর ২০১৫ সালের মাঝামাঝি সময় থেকে নাজিবের পদত্যাগের দাবি জোরালো হয়ে ওঠে। গত বছরই নাজিব রাজাক নির্বাচনের ডাক দেবেন বলে আশা করা হয়েছিলো। তবে তা এড়িয়ে গেছেন নাজিব। অভিযোগ রয়েছে, নিম্ন আয়ের পরিবার ও গ্রাম্য ভোটারদের আকৃষ্ট করতে তাদের জন্য বাজেটে সংস্কার আনার জন্য সময় নিচ্ছিলেন মালয়েশীয় প্রধানমন্ত্রী। তার বিএন জোটের জন্য নিম্ন আয়ের পরিবার ও গ্রাম্য ভোটারদেরকে গুরুত্বপূর্ণ বলে বিবেচনা করা হয়।

শেষ পর্যন্ত শুক্রবার পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার ঘোষণা দিলেন নাজিব।

এবারের সংসদ নির্বাচনে নাজিব রাজাকের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে দেখা যাবে আধুনিক মালয়েশিয়ার স্থপতি এবং টানা ২২ বছর দেশটির প্রধানমন্ত্রী পদে থাকা মাহাথির মোহাম্মদকে। এ নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রীর পদের জন্য ৯২ বছর বয়সি মাহাথিরকে মনোনয়ন দিয়েছে বিরোধীদলীয় জোট পাকাতান হারাপান।

আর পিপলস জাস্টিস পার্টির প্রেসিডেন্ট আনোয়ার ইব্রাহিমের স্ত্রী ওয়ান আজিজাহ ওয়ান ইসমাইল উপপ্রধানমন্ত্রীর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। বিরোধী দলের নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন। নির্বাচনে জয়ী হলে আনোয়ার ইব্রাহিম কারাগার থেকে মুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করার আগ পর্যন্ত অন্তর্বতীকালীন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন মাহাথির মোহাম্মদ।

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদকে আধুনিক মালয়েশিয়ার স্থপতি বলা হয়। তিনি ১৯৮১ সালে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তার নেতৃত্বে ক্ষমতাসীন দল ইউনাইটেড মালয়স ন্যাশনাল অর্গানাইজেশন (ইউএমএনও) টানা পাঁচবার নির্বাচনে জয়ী হয়ে সরকার গঠন করে। তিনি এশিয়ার সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। টানা ২২ বছর পর ২০০৩ সালের ৩০ অক্টোবর তিনি স্বেচ্ছায় প্রধানমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দেন। পরে তিনি দল থেকেও পদত্যাগ করেন।

The post পার্লামেন্ট ভেঙে দিলেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী appeared first on Ekushey24.com.

Bangla24hour.com © 2017