[Close]

নাভি দেখে শেখার আছে অনেক কিছু (জেনে নিন আকার অনুযায়ী বৈশিষ্ট্য)


নাভি দেখে শেখার আছে অনেক কিছু (জেনে নিন আকার অনুযায়ী বৈশিষ্ট্য)<>

নাভি দেখে শেখার আছে- সবাই নিজের ব্যাপারে অনেক কিছু জানতে চায়। কিন্তু আসল কথা হলো সবাইকে সবকিছু তার ব্যাপারে বলা অসম্ভব।

কিন্তু তা সত্ত্বেও আমাদের এই পৃথিবীতে এমন অনেক জিনিস আছে যার ওপর ভিত্তি করে আমরা কোন মহিলা বা পুরুষের চরিত্র জীবন বা ভবিষ্যতের ব্যাপারে অনেক কিছু বলতে পারি। সেটা আপনি সমুদ্র শাস্ত্র বলুন, বাস্তুশাস্ত্র বলুন বা গণিতশাস্ত্র বলুন বা হস্তরেখা দ্বারা জানার কথা বলুন না কেন।

আজ আমরা সমুদ্রশাস্ত্র সম্বন্ধে কিছু জিনিস জানব। যার দ্বারা আমরা নিজেদের ব্যাপারে অনেক কিছু জানতে পারি। সমস্ত মুখমন্ডল এবং সমস্ত শরীরেরকে নিরীক্ষণ করে এই শাস্ত্র বানানো হয়। এই শাস্ত্রতে অনেক কিছুর ব্যাপারে বলা হয়েছে। যেমন কোন মানুষের শরীরের গঠন বা বিশেষ কোন জায়গার গঠন দেখে সেই মানুষটির প্রকৃতি এবং তার ভবিষ্যৎ সম্পর্কে অনেক কিছু বলা যায়।

কিন্তু এই সমস্ত কথার কোনো বৈজ্ঞানিক প্রমাণ নেই। কিন্তু মানুষ এই কথাগুলো শুনে খুবই রোমাঞ্চ অনুভব করে। তাই মানুষ এই কথাগুলোকে মানতে বিশ্বাস করে। আসুন তাহলে শুনি যেগুলোর ব্যাপারে শুনে আপনি একটি ধারণা করতে পারবেন। আজ শিখবো যে কারুর নাভি দেখে কি করে আপনার বা অন্য কারোর স্বভাবের ব্যাপারে আপনি জানতে পারবেন।

গোল নাভি –

এই সমস্ত মানুষজন প্রায়ই প্রেমে পড়তে দেখা যায়। এই সমস্ত মানুষজনের নিজের শারীরিক বিষয়ের ওপর বিশেষ নজর রাখা প্রয়োজন। এইরকম গোলাকার নাভির মহিলারা খুবই সুন্দর এবং বুদ্ধিমতী হয়ে থাকে। পারিবারিক জীবনেও খুব সুখী হয়।

বড় এবং গভীর নাভি –

এই রকম নাভিওয়ালা মানুষ খুবই ভাগ্যবান বা ভাগ্যবতী হয়। এই সমস্ত মানুষজন খুবই বুদ্ধিমান এবং উদার মনের হয়ে থাকে। জীবনের প্রথম ধাপে এরা অসফল হলেও একটি সঠিক বয়সের পর এরা জীবনে প্রচুর সাফল্য লাভ করে। এরকম নাভিওলা স্ত্রীরা খুবই সরল মনের হয় এবং পুরুষরা খুবই ভোগী হয়ে থাকে।

অগভীর নাভি –

অগভীর বা ছোট নাভি খুবই অশুভ লক্ষণ। এ সমস্ত মানুষজনের কোন কাজ সফল হতে চায় না। এমনকি এদের শরীর প্রায় সময়ই খারাপ হতে দেখা যায়। এইরকম নাভিওলা স্ত্রীরা খুবই খিটখিটে এবং অস্থির স্বভাবের হয়ে থাকে।

অন্যদিকে এই প্রকার নাভিওলা পুরুষরা খুবই ভাগ্যবান হয়ে থাকে এবং স্পষ্ট বক্তা হন। তারা জীবনের সমস্ত সম্পর্কগুলোকে খুবই ভালভাবে বজায় রাখতে জানেন।

বেরিয়ে থাকা এবং বড় নাভি –

এই সমস্ত নাভিওলা মানুষজন খুবই জেদী প্রকৃতির হয়ে থাকে। এরা জীবনে সবসময় একটা প্রবণতা দেখায়। এসমস্ত মানুষজনকে অন্যরা ব্যবহার করে নেয় সহজে এবং তারা সেটা বুঝতেও পারেনা। এসমস্ত নাভিওলা মহিলারা পারিবারিক জীবন সঠিকভাবে বজায় রাখতে পারেনা।

উপরের দিকে নাভি –

যে সমস্ত নাভি উপরের দিকে এবং বড় হয় সে সমস্ত নাভিকে আদর্শ নাভি বলা হয়। এই সমস্ত নাভিওয়ালা মানুষজন খুব হাসমুখ প্রকৃতির হয় এবং সবার সাথে মিলে মিশে থাকতে পছন্দ করে। এই সমস্ত মানুষজনের মধ্যে পুরুষরা খুবই কর্মট প্রকৃতির হয় এবং তারা জীবনে অনেক পয়সা রোজগার করতে চান। তারা কোন ভুল পথে যেতে চান না।

নিচের দিকে নাভি –

এসমস্ত মানুষজনের একদমই কোন কর্মশক্তি দেখা যায় না। অল্প একটু কাজ করতে গেলেই হাঁপিয়ে ওঠে। এই সমস্ত নাভিওলা পুরুষদের বেশিরভাগ সময়ই কন্যা সন্তান হতে দেখা যায় এবং প্রথম কন্যা সন্তান হওয়ার পর এদের সৌভাগ্য ফেরে।

ডিম্বাকৃতি নাভি –

এই সমস্ত মানুষজন জীবনের অর্ধেক সময়ই চিন্তাভাবনা করেই কাটিয়ে দেন এবং এই সমস্ত মানুষ জীবনের ভালো সময়টিও হারিয়ে ফেলেন। তাই তাদের বেশি চিন্তাভাবনা করার উপদেশ কখনোই দেওয়া উচিত নয়।

চওড়া নাভি –

এইরকম নাভির মানুষজন খুবই সতর্ক হয়ে থাকে এবং তারা প্রায়ই অন্য মানুষের ওপর সন্দেহ করে। তা সত্বেও এই সমস্ত মানুষজন খুবই মানসিক

দিক থেকে শক্তিশালী হয়ে থাকে। তারা খুবই অন্তর্মূখী স্বভাবের হয়ে থাকে।

বৃত্তকার বা গোল চক্রাকার নাভি –

এই সমস্ত মানুষ খুবই আশাবাদী হন। জীবনে সব সময় পজিটিভ কথাই এনারা চিন্তাভাবনা করে থাকে। বন্ধুবান্ধব বা পরিবারের সাথে এর সম্পর্ক খুবই ভালো হয়ে থাকে। এদের জীবনে কোনদিনও টাকা পয়সার কমতি হয় না।

আকারওলা নাভি –

যাদের নাভির উপর থেকে নিচে আসতে আসতে দুভাগে বিভক্ত হয়ে যায় সে সমস্ত মানুষজন খুবই ভাগ্যবান হয়ে থাকে। এদের আর্থিক, পারিবারিক এবং স্বাস্থ্যের দিক থেকে কোন খারাপ কিছু লক্ষ্য করা যায় না। এরা সবসময় সুখ ভোগ করে থাকেন।

The post নাভি দেখে শেখার আছে অনেক কিছু (জেনে নিন আকার অনুযায়ী বৈশিষ্ট্য) appeared first on Deshi News.

Bangla24hour.com © 2017