[Close]

যে কারণে ‘দেবী’র পোস্টার প্রত্যাহার দাবী বাটার


দেবীর অনলাইনে প্রকাশিত প্রথম লুক তথা পোস্টার প্রত্যাহারের দাবী জানিয়েছে বাংলাদেশ তামাক বিরোধী জোট (বাটা)। পাশাপাশি নায়ক চঞ্চল চৌধুরীর ধূমপানরত ছবির পোস্টার বিষয়ে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন লঙ্ঘনে অবিলম্বে সেন্সর বোর্ড এবং তথ্য মন্ত্রণালয়কে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি করেছে বাংলাদেশ তামাক বিরোধী জোট।







সরকারি অনুদানে হুমায়ূন আহমেদের গল্প ‘দেবী’ অবলম্বনে নির্মিত ছবির ফার্স্ট লুক প্রকাশ হয় জাজ মাল্টিমিডিয়ার অফিসিয়াল পেজে। ১১ এপ্রিল। সেখানে দেখা যায় কালো পটভূমিতে জলরংয়ে আঁকা উস্কোখুস্কো চুলের একজন। মুখচ্ছবিটি চঞ্চল চৌধুরীর আদলে। মাথায় চিন্তার ঘুর্ণিপাক তার। আঙ্গুলে সিগারেট আর ধোঁয়া। চোখে চশমা। নীচে রক্তজবায় গোঁজা লেটারিং ‘দেবী’।







বাংলাদেশ তামাক বিরোধী জোট (বাটা) এক বিবৃতিতে জানায়, সরকারের আর্থিক অনুদানে জনপ্রিয় লেখক হুমায়ূন আহমেদ এর গল্প ‘দেবী’ অবলম্বনে নির্মিত ছবিটিতে নায়ক চঞ্চল চৌধুরীর ধূমপানরত ছবি প্রদর্শন করা হয়েছে। পোস্টারে ধূমপানের দৃশ্য এমনভাবে প্রদর্শন করা ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন, ২০০৫ এর ধারা ৫ (ঙ) এর সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের ৫ এর (ঙ) ধারায় উল্লেখ করা হয়েছে, ‘বাংলাদেশে প্রস্তুতকৃত বা লভ্য ও প্রচারিত, বিদেশে প্রস্তুতকৃত কোনো সিনেমা, নাটক বা প্রামাণ্য চিত্রে তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহারের দৃশ্য টেলিভিশন, রেডিও, ইন্টারনেট, মঞ্চ অনুষ্ঠান বা অন্য কোনো গণমাধ্যমে প্রচার, প্রদর্শন বা বর্ণনা করিবেন না বা করাইবেন না।’







এ প্রসঙ্গে তামাক বিরোধী জোট সচিবালয়ের সচিব সৈয়দ অনন্যা রহমান চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, হুমায়ূন আহমেদ অসম্ভব জনপ্রিয় লেখক। তা তার মৃত্যুর পরও প্রমাণিত। চঞ্চল চৌধুরীও খ্যাতিমান। হুমায়ূন আহমেদ এবং চঞ্চল চৌধুরী-এ দুই নিয়ামক চলচ্চিত্রের দর্শকদের জন্য যথেষ্ট। ফলে চঞ্চল চৌধুরীর হাতে-ঠোঁটে ধরা সিগারেট এর দৃশ্য ধূমপানের প্রসারে বড় ভূমিকা রাখবে ভাবাটাই স্বাভাবিক। তাই আমাদের এ অবস্থান। সিনেমাটির বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান নেই।







এ প্রসঙ্গে জয়া আহসানকে ফেসবুকে ইনবক্সে প্রশ্ন করলেও উত্তর মেলেনি। অন্যদিকে জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আবদুল আজিজ চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, ‘বিষয়টি জেনে নিয়ে তারপর বলতে পারব। আমরা এ বিষয়ে এখনও কিছু জানিনা। ’







<>

Bangla24hour.com © 2017