[Close]

টালি নায়িকাদের একমাত্র ভরসা শাকিব !


কলকাতার নায়িকা হিসেবে শাকিবের বিপরীতে সর্বপ্রথম কাজ করেন স্বস্তিকা মুখার্জি। এফ আই মানিক পরিচালিত ছবিটি বাংলাদেশে মুক্তি পায় ‘সবার উপরে তুমি’ নামে ১৩ নভেম্বর ২০০৯ সালে। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১০ সালে কলকাতায় মুক্তি পায় ‘আমার ভাই আমার বোন’ নাম নিয়ে। ছবিটি নির্মিত হয়েছিলো যৌথ প্রযোজনায়।













এদিকে ২০১৬ সালে এসকে মুভিজ ও বাংলাদেশের জাজ মাল্টিমিডিয়ার যৌথ প্রযোজনায় শাকিব খান ও শ্রাবন্তী ছবি ‘শিকারী’ ছবিটি মুক্তি পেলে বাংলাদেশ দারুণ ব্যবসা করতে সমর্থ হয়। পাশাপাশি কলকাতায় ছবিটি বেশ সাফল্য পায়।













ফলে পরের বছর একই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের ব্যানারে জুটি বাঁধেন শাকিব খান ও শুভশ্রী। তাদের ছবিটির নাম ছিলো ‘নবাব’। গেল বছরের কোরবানী ঈদে মুক্তি পাওয়া ছবিটি নবাবী করেছে সিনেমা হলে।

এদিকে শাকিব খান যেমন ঝুঁকছেন যৌথ প্রযোজনার উপর। পাশাপাশি কলকাতার নায়িকাদের এখন নায়ক হিসেবে শাকিবকেই প্রধান পছন্দ।













এবার অপেক্ষা রয়েছে শাকিবকে নিয়ে সায়ন্তিকা ও নুসরাত জাহানের ছবি ‘মাস্ক’র মুক্তি। কলকাতার সবেচেয়ে বড় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মসের ব্যানারে একক প্রযোজনাতেই ছবিটি নির্মিত হবে বাংলাদেশে।

এর বাইরে শাকিব আরও দুটি সিনেমাতে কাজ করছেন শুভশ্রী ও সায়ন্তিকাকে নিয়ে। জয়দীপ মুখার্জি পরিচালিত ‘চালবাজে’ শাকিবের সঙ্গে রোমান্টিক নায়িকা হিসেবে দেখা যাবে শুভশ্রীকে। আর সায়ন্তিকার সঙ্গে শাকিবকে নিয়ে কলকাতার পরিচালক রাজিব নতুন একটি ছবির উদ্যোগ নিয়েছিলেন গতবছর।













এদিকে চলচ্চিত্রপাড়ার আলোচনা, কলকাতায় পরিবর্তনের সঙ্গে তাল না মেলাতে পেরে বেকার হতে যাওয়া বেশ ক’জন নায়িকাদের টার্গেট এখন বাংলাদেশের সিনেমা বাজার। এখানেই তারা জমিয়ে তুলতে চাইছেন নিজেদের ক্যারিয়ার।

অভিষেকের জন্য তারা বেছে নিচ্ছেন শাকিব খানকে। এজন্য তারা নিয়মিতই ধরনা দিচ্ছেন কলকাতার বিভিন্ন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানে। কারো কারো টার্গেটে রয়েছে বাংলাদেশের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়াও।













কেননা, ওই প্রতিষ্ঠানটির হাত ধরেই বাংলাদেশে শুভযাত্রা করেছেন শ্রাবন্তী ও শুভশ্রী। নায়িকাদের পাশাপাশি জিৎ, ওম, অঙ্কুশের মতো নায়কেরাও এই প্রতিষ্ঠানের প্রযোজনায় বাংলাদেশের সিনেমা হলে হাজির হয়েছেন।

Bangla24hour.com © 2017