[Close]

শিখরকে সাকিবের প্রশ্ন, ভাবীর সাথে পরিচয় হয়েছিল কিভাবে? উত্তরে যা বললেন শিখর


নামী হোসিয়ারি কম্পানি ‘রূপা’র পঞ্চাশ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে নিউজিল্যান্ড ও সানরাইজার্স অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে নিয়ে সবচেয়ে বেশি মজা হল। বেচারাকে হিন্দি পর্যন্ত বলতে হল! পুরোটাই অবশ্য শিখিয়ে দিলেন পাশে বসা শিখর ধাওয়ান। একবার শেখানো ভাঙা-ভাঙা হিন্দিতে উইলিয়ামসন বললেন শোলের সেই বিখ্যাত ডায়লগ, ‘ইয়ে হাত মুঝে ডে-ডে ডাকুর!’ ডায়লগটা তিনি যাকে বললেন তার নাম শিখর ধাওয়ান। ক্রিকেট মাঠে সবাই তাকে ‘গব্বর’ নামেই চেনে!

অবশ্য শিখরকে সবচেয়ে বড় চমক দিলেন সাকিব। প্রশ্ন ছিল, স্ত্রীর সঙ্গে শিখরের পরিচয় কীভাবে হয়েছিল? সবাই যখন মাথা চুলকোচ্ছেন আর শিখর মিটিমিটি হাসছেন, তখন সাকিব বললেন, ‘অনলাইনে পরিচয়।’ যা শুনে শিখর বললেন, ‘অনেকটাই ঠিক বলেছে। আয়েশা আমার আর হরভজনের কমন ফ্রেন্ড ছিল ফেসবুকে। সেখান থেকেই পরিচয়।’

এরপর সাকিবের চমকানোর পালা। চমক দিলেন লঙ্কান স্পিন কিংবদন্তি। সাকিব কোন পাঁচটি ক্লাবের হয়ে খেলেছেন তা নিঁখুতভাবে বলে দিলেন তিনি, ‘ও খেলেছে বার্বাডোজ, খুলনা, কেকেআর, সানরাইজার্স আর অ্যাডিলেডে।’ যা শুনে হাততালি দিয়ে উঠলেন সাকিবও। আইপিএলে পরপর তিন ম্যাচ জিতে দারুণ মুডে হায়দরাবাদের ক্রিকেটাররা। সেটাই মজা আর আনন্দ হয়ে ছড়িয়ে পড়ল বিকালের সেই আড্ডায়।

কলকাতার সল্টলেক স্টেডিয়ামের পাশে অভিজাত হোটেলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ক্রিকটারদের আড্ডায় উঠে এসেছে এসব তথ্য। দলটির স্পিন কোচ মুত্তিয়া মুরলিধরন মনে করেন, তিনি যদি এই সময় বোলিং করতেন, বেধড়ক মার খেয়ে যেতেন হয়তো! বিশ্বের সেরা স্পিনারের ব্যাখ্যা, ‘এখন ব্যাটসম্যানরা টি-টোয়েন্টি খেলে অনেক বেশি স্ট্রং। শুধু ছক্কা মারতে ভালোবাসে। এখন বোলারদের কাজ অনেক কঠিন।’

<>

Bangla24hour.com © 2017